মেনু নির্বাচন করুন

শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন সংগ্রহশালা

শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন সংগ্রহশালা

                                                            

শিল্প সংস্কৃতির পরিমন্ডলে বাংলাদেশ তথা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সমকালীন শিল্পকলার একটি উজ্জ্বল নক্ষত্র, প্রকৃতি ও মানবতাবাদের শিল্পী, বাংলাদেশের আধুনিক শিল্পধারার প্রথম প্রতিষ্ঠাতা প্রাণপুরুষ শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন। তিনি বাংলাদেশের শিল্পচর্চা ও শিল্পকলা আন্দোলনের পথিকৃৎ। তিনি তাঁর সৃজনশীল প্রতিভার মাধ্যমে বাংলাদেশের সমকালীন শিল্পকলাকে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে এক সস্মানজনক আসনে অধিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছিলেন। শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন ১৯১৪ খ্রিস্টাব্দের ২৯ ডিসেম্বর বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলার অন্তর্গত বর্তমান কিশোরগঞ্জ জেলার একটি মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৯৭৬ খ্রিস্টাব্দের ২৮ মে ৬২ বছর বয়সে ঢাকার তৎকালীন পোস্ট গ্রাজুয়েট হাসপাতাল,শাহবাগে (বর্তমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়) শেষ নি:শবাস ত্যাগ করেন। তাঁরই প্রতিষ্ঠিত চারুকলা ইন্সটিটিউটের পাশে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে তাঁকে সমাধিস্থ করা হয়।

 

 

মহান শিল্পীর শৈশব কৈশোরের স্মৃতি বিজড়িত ব্রহ্মপুত্র নদ তীরবর্তী নৈসর্গিক দৃশ্য পরিবেষ্টিত শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন সংগ্রহশালা। শিল্পী তাঁর জীবদ্দশায় এ স্থানটিতে প্রায়ই আসতেন এবং ছবি আঁকতেন। সাধারণের শিল্প ভাবনাকে উৎসাহিত করতে এবং চিত্রকলার আন্দোলনকে বিকেন্দ্রীকরণ অর্থ্যাৎ ঢাকার বাইরে ছড়িয়ে দেবার লক্ষে জয়নুলের শৈশবের স্মৃতিঘেরা শহর ময়মনসিংহে শিল্পাচার্যসহ সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ত্ব ,গুণীজন, বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ এবং ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসন সম্মিলিতভাবে সংগ্রহশালাটি প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণের ধারাবাহিকতায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের তৎকালীন মহামান্য উপ-রাষ্ট্রপতি জনাব সৈয়দ নজরুল ইসলাম ০১ বৈশাখ ১৩৮২ বঙ্গাব্দ (১৫ এপ্রিল ১৯৭৫ খ্রিস্টাব্দ) শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন সংগ্রহশালার শুভ উদ্বোধন করেন। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের একটি শাখা হিসাবে সংগ্রহশালাটি ১৯৯৯খ্রি. থেকে পরিচালিত হচ্ছে।