মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

এক নজরে জেলা

এক নজরে জেলা

নামকরণ
মোগল আমলে মোমেনশাহ নামে একজন সাধক ছিলেন, তাঁর নামেই মধ্যযুগে অঞ্চলটির নাম হয় মোমেনশাহী। ষোড়শ শতাব্দীতে বাংলার স্বাধীন সুলতান সৈয়দ আলাউদ্দিন হোসেন শাহ তাঁর পুত্র সৈয়দ নাসির উদ্দিন নসরত শাহ'র জন্য এ অঞ্চলে একটি নতুন রাজ্য গঠন করেছিলেন, সেই থেকেই নসরতশাহী বা নাসিরাবাদ নামের সৃষ্টি। নাসিরাবাদ নাম পরিবর্তন হয়ে ময়মনসিংহ হয় একটি ভুলের কারণে। বিশ টিন কেরোসিন বুক করা হয়েছিল বর্জনলাল এন্ড কোম্পানীর পক্ষ থেকে নাসিরাবাদ রেল স্টেশনে। এই মাল চলে যায় রাজপুতনার নাসিরাবাদ রেল স্টেশনে। এ নিয়ে অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হয়। পরবর্তীতে আরো কিছু বিভ্রান্তি ঘটায় রেলওয়ে স্টেশনের নাম পরিবর্তন করে ময়মনসিংহ রাখা হয়। সেই থেকে নাসিরাবাদের পরিবর্তে ময়মনসিংহ ব্যবহৃত হয়ে আসছে।          

 


শম্ভুগঞ্জ মোড়ে মুক্তিযুদ্ধস্মৃতিসৌধ    
জেলা ঘোষণার তারিখ
১৭৮৭ খ্রিস্টাব্দের ১লা মে। ১৯৮৪ খ্রিস্টাব্দে সকল মহকুমা জেলায় উন্নীত করার সরকারি সিদ্ধান্ত গৃহীত হওয়ার ফলে বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলার ময়মনসিংহ,টাঙ্গাইল, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোনা ও শেরপুর সকল মহকুমাই জেলায় উন্নীত হয়।

অবস্থান                                                                                                 
২৪০২'৩১" থেকে ২৫২৫'৫৬" উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৯৩৯'০০" থেকে ৯১১৫'৩৫" পূর্ব দ্রাঘিমাংশ- এ। উত্তরে গারোপাহাড় ও ভারতের মেঘালয় রাজ্য, দক্ষিণে গাজীপুরজেলা, পূর্বে নেত্রকোনা  কিশোরগঞ্জ জেলা এবং পশ্চিমে শেরপুর, জামালপুর টাঙ্গাইল জেলা অবস্থিত।

আয়তনওগঠনআয়তন ৪৩৬৩.৪৮ বর্গ কিলোমিটার। এটি ১৩টি উপজেলা, ১৪টি থানা, ১০টি পৌরসভা (১টি ক শ্রেণীর, ৭টি খ শ্রেণীর, ২টি গ শ্রেণীর), ১৪৬টি ইউনিয়ন, ২২০১টি মৌজা, ২৭০৯টি গ্রাম নিয়ে গঠিত। উপজেলাসমূহের নাম-ঈশ্বরগঞ্জ, গফরগাঁও, গৌরীপুর, ত্রিশাল, ধোবাউড়া, নান্দাইল, ফুলপুর,তারাকান্দা, ফুলবাড়ীয়া,ভালুকা, ময়মনসিংহ   সদর, মুক্তাগাছা, হালুয়াঘাট। 

 

 

 

 





টাউন হল মোড়ে শহীদ মিনার 

                                                                          জনসংখ্যা


মোট জনসংখ্যা ৫৩,১৩,১৬৩ জন (২০০১১সনের আদমশুমারী অনুযায়ী),

পুরুষ ২৬,৪০,০৪০ জন, মহিলা ২৬,৭৩,১২৩ জন,

 

 

মোট জনসংখ্যা ৫৩,১৩,১৬৩ জন (২০০১১সনের আদমশুমারী অনুযায়ী),

পুরুষ ২৬,৪০,০৪০ জন, মহিলা ২৬,৭৩,১২৩ জন,

প্রাকৃতিক সম্পদ
নদ-নদীর সংখ্যা ২২টি, আয়তন ১১৪৪৫.২০ হেক্টর। নদীর নাম- ব্রহ্মপুত্র, সুতিয়া, ক্ষিরু, সাচালিয়া, পাগারিয়া, নাগেশ্বর, কাচাঁমাটিয়া, আয়মন, বানার, নরসুন্দা, বোরাঘাট, দর্শনা, রামখালী, বৈলারি, নিতাই, কংশ, ঘুঘুটিয়া, সাতারখালী, আকালিয়া, জলবুরুঙ্গা, চৌকা মরানদী, রাংসা নদী ইত্যাদি। বিল ও প্রধান প্লাবনভূমির সংখ্যা ১১৪০টি, আয়তন ৩০৭৬২.০০ হেক্টর। বনভূমি ৩৮৮৬০.৭৩ একর। বালু মহল ১৫টি, আয়তন ৮৭৪.৫০ একর। সাদামাটিমহল ১টি, আয়তন২৪.৩৩ একর   ইত্যাদি।                              

  

                                                                                         

 

 

 

  ব্রহ্মপুত্র নদের দৃশ্য

শিক্ষারহারওশিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
জেলার শিক্ষার হার ৩৯.১০% (পুরুষ ৪১.০৯%, মহিলা ৩৬.০৩%)। প্রাথমিক বিদ্যালয় মোট ২৬৮৯টি (তন্মধ্যে সরকারী ১২৪৯টি, বেসরকারী রেজিষ্টার্ড ৬২১টি, আন রেজিষ্টার্ড ২৭টি, উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন ৫৬টি, কিন্ডার গার্ডেন ১২৬টি, পরীক্ষণ ১টি, স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদ্রাসা ২৩৪টি, উচ্চ মাদ্রাসা সংলগ্ন ২৪৩টি, কমিউনিটি ১১৪টি,

এনজিও ১৮টি)। নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ১০৫টি, ৯ম শ্রেণীর অনুমতি প্রাপ্ত বিদ্যালয় ৭২টি,মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৪০৪টি, স্কুল এন্ড কলেজ ১৩টি, উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৩১টি,ডিগ্রীকলেজ ২৭টি (সরকারী ৩টি, বেসরকারী ২৪টি), বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ২টি (সরকারী),বিশ্ববিদ্যালয় ২টি (সরকারী), মেডিক্যালকলেজ ২টি (সরকারী ১টি, বেসরকারী ১টি),ক্যাডেট কলেজ ১টি, চারুকলাইনষ্টিটিউট ১টি, হোমিওপ্যাথিক কলেজ১টি,ইঞ্জিনিয়ারিংকলেজ১টি,কারিগরী শারীরিকমহাবিদ্যালয় ১টি, ভোকেশনাল ইনষ্টিটিউট ২টি, শিক্ষা  মহাবিদ্যালয় ১টি, কামিল মাদ্রাসা ৪টি, ফাযিল মাদ্রাসা ৪৭টি, আলিম মাদ্রাসা ৪২টি, দাখিল মাদ্রাসা ২৯৫টি, আর্ট স্কুল ১টি।                                                   

   টাউন হল মোড়ে জ়াতীয়কবি কাজী নজরুলের প্রতিকৃতি

 

 

শিল্প ও কল কারখানা
বৃহৎ শিল্প ৩টি। উল্লেখযোগ্য মাঝারী ও ক্ষুদ্র শিল্প ও কল-কারখানা প্রায় ১৪১টি, তন্মধ্যে ৯০টি বিসিক শিল্প নগরী ময়মনসিংহে এবং বাকী প্রায়৫০টিভালুকায়অবস্থিত।                                                                     

কৃষি 
মোট জমি ৪,৩৬,৩৪৮ হেক্টর, নীট ফসলী জমি ৩,৭২,৭০৭ হেক্টর। এক ফসলী জমি ৪০,১৭২ হেক্টর, দুই ফসলী জমি ২৪৮৩৩৫ হেক্টর, তিন ফসলী জমি ৮৩,৩৫০ হেক্টর, চার ফসলী জমি ৮৫০ হেক্টর। মোট ফসলী জমি ৭,৯০,২৯২ হেক্টর,ফসলের নিবিড়তা ২১২.০০%। কৃষি ব্লকের সংখ্যা ৫২৫টি, কৃষি বিষয়ক

                                                        

বাংলাদেশকৃষিবিশ্ববিদ্যালয়সংস্কৃতি                                                                                    

পরামর্শ কেন্দ্র ২৯০টি, সয়েল মিনিল্যাব ৫৯টি, বিএডিসি বীজ ডিলার ৩১৬ জন, বিসিআইসি সার ডিলার ১৪০ জন, কোল্ড ষ্টোর ১টি।

সেচসুবিধা                                                                                            

 সেচাধীন জমি ২৫০৩৭০ হেক্টর। গভীর নলকুপ মোট৩৪৫৪টি(বিদ্যুৎচালিত২৬৬৬টি,ডিজেলচালিত ৭৮৮টি), অগভীর নলকুপ মোট ৪৯৬২৭টি (বিদ্যুৎ চালিত ৮৩৩০টি, ডিজেলচালিত৪১২৯৭টি), পাওয়ার পাম্প মোট ৪৪৭৮টি (বিদ্যুৎ চালিত ২০৯টি, ডিজেল চালিত ৪২৬৯টি)।                                                                      

খাদ্যশস্যপরিস্থিতি
খাদ্যশস্যের বাৎসরিক চাহিদা ৮,২৬,৭২৫ মেট্রিক টন, উৎপাদন ১৭,৯২,২৫৮ মেট্রিক টন, উদ্বৃত্ত ৭,৮৬,৩০৮ মেট্রিক টন। প্রধানতঃ ধান, পাট, গম, আলু, মসুর, ভুট্টা, সরিষা, চীনাবাদাম, পান, কলা, আনারস, কাঁঠাল ও শীতকালীন  

শাকসব্জী উৎপন্ন হয়।

মৎস্যসম্পদ                                                          

নদী ২২টি, আয়তন ১১৪৪৫.২০ হেক্টর; বিল ও প্রধান প্রধান প্লাবন ভূমি ১১৪০টি, আয়তন ৩০৭৬২.০০ হেক্টর; পুকুর ১৪০৩৩৪টি, আয়তন ২৬০৩৮.৬৫ হেক্টর (সরকারী পুকুর ৩৬৬টি, আয়তন ১৩০.২০ হেক্টর; বেসরকারী পুকুর ১৩৯৯৬৮টি, আয়তন ২৫৯০৮.০৫ হেক্টর)। নিবিড় পদ্ধতিতে মাছ চাষের আওতায় খামার (বেসরকারী বানিজ্যিক খামার)৩২৫৯টি, আয়তন ৪৪৩০.৫৫ হেক্টর ও উৎপাদন ৭৯৬৭৪.৮৬ মেট্রিক টন। সনাতন/উন্নত সনাতন পদ্ধতিতে মাছ চাষের আওতায় পুকুর  

                         উদ্বৃত্তখাদ্য শস্যের জেলা ময়মনসিংহ

 

১৩৬২৪৭টি, আয়তন ২১৬০৮.১০ হেক্টর ও উৎপাদন ৬৮৫১৭.৫৭ মেট্রিক টন। বেসরকারী মৎস্য হ্যাচারী ৭৭টি, বেসরকারী মৎস্য নার্সারী ২১১০টি, মৎস্য খাদ্যের দোকান/কারখানা ১১০টি, মৎস্য আড়তের সংখ্যা৮২টি, বরফ কলের সংখ্যা ৫৩টি। জেলায় বার্ষিক মাছ উৎপাদন ১৬০৪০৪.০০০ মেট্রিক টন, বার্ষিক মাছের চাহিদা ৬৮০৩১.০০০ মেট্রিক টন, বার্ষিক মাছ উদ্বৃত্ত ৯২৩৭৩.০০০ মেট্রিক টন। মৎস্য কার্যক্রম সংশ্লিষ্ট এনজিও ৬টি (নামঃ সোসাইটি ফর সোসাল সার্ভিস, পদক্ষেপ, কারিতাস,ভিশন, সোসিও ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন।                    

পশু সম্পদ
জেলা পশু হাসপাতাল ১টি, পশু চিকিৎসালয় ১২টি, জেলা কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্র ১টি, কৃত্রিম প্রজনন উপকেন্দ্র ১৩টি, কৃত্রিম প্রজনন পয়েন্ট ১৮টি, এফডিআইএল ১টি, হাঁস প্রতিপালন ইউনিট ১টি। গবাদি পশুর খামার ১৮৫৫টি, ছাগলের খামার ১৮০৩টি, ভেড়ার খামার ১৫টি, মুরগী খামার ১৬৯৯টি (লেয়ার ৫৩১টি, ব্রয়লার

                                                                                   সেইন্ট প্যাট্রিকের গীর্জা

হাঁস খামার ১১৭৭টি, ব্রিডার খামার ৪টি। গরু ১৯,৭৭,৬৫১টি, মহিষ ৩১০৭৯টি, ছাগল ৭৩৮৯১০টি,ভেড়া ২০১০০টি, ঘোড়া ১১২১টি, শুকর ১১০৯টি, হাঁস ১১৪১৫৭৪টি, মুরগী ৭৭০৫৯৮০টি।

         

বাৎসরিক উৎপাদন- দুধ ১.৭৮০ লক্ষ মেট্রিক টন, ডিম ২৮,৪৫,০৫,০০০টি, মাংস ২.৬৯ লক্ষ মেট্রিক টন। পশু সম্পদ কার্যক্রম সংশ্লিষ্ট এনজিও- ওয়ার্ল্ড ভিশন, সোসিও ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন। শন, স্লিপ, মাটি)। 

স্বাস্থ্যকেন্দ্র                                                                                                          
মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ২টি (সরকারী ১টি, বেসরকারী ১টি), সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল ১টি (১৪১ শয্যাবিশিষ্ট), বক্ষ ব্যাধি ক্লিনিক ১টি, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১১টি (৬টি ৫০ শয্যাবিশিষ্ট, ৫টি ৩১ শয্যাবিশিষ্ট), পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র ৮৬টি, স্বাস্থ্য উপকেন্দ্র ৪৩টি, কমিউনিটি ক্লিনিক ৪১২টি (বর্তমানে চালু ৩৫৪টি), বিদ্যালয় স্বাস্থ্য কেন্দ্র ১টি, হোমিও হাসপাতাল ১টি, বেসরকারী ক্লিনিক ৭২টি, মিশনারি হাসপাতাল ১টি সরকারী অ্যাম্বুলেন্স ১৬টি (চালু ৯টি)। স্বাস্থ্য কার্যক্রম সংশ্লিষ্ট এনজিও ১৬টি।  
যোগাযোগ ব্যবস্থা

উন্নত। পাকা সড়ক প্রায় ৯৬৪ কিলোমিটার, কাঁচা সড়ক ৭৮৫৮ কিলোমিটার, রেলপথ ১৫৯ কিলোমিটার ও নদী পথ ২২৩ কিলোমিটার। ঢাকাসহ পার্শ্ববর্তী জেলা শহর টাঙ্গাইল, নেত্রকোনা কিশোরগঞ্জ, জামালপুর ও গাজীপুরের সাথে পাকা সড়ক ও রেলপথের যোগাযোগ রয়েছে। রাজধানী ঢাকা থেকে ময়মনসিংহ জেলার দূরত্ব সড়ক পথে ১২১ কিমি এবং রেলপথে ১২৩ কিমি। জেলা সদর থেকে পাকা সড়ক পথে উপজেলার এবং ইউনিয়ন পরিষদের প্রায় সারাবছরই মোটরযান চলাচলের উপযোগী পাকা/কাঁচা রাস্তা রয়েছে। তবে জেলায় প্রবাহিত নদীসমূহের তলদেশ ভরাট হয়ে যাওয়ায় নদীগুলো নাব্যতা হারিয়েছে।

পোষ্টাল সুবিধা                                                                          

ডাকঘর ২৯৮টি, পোষ্টাল কোড- ঈশ্বরগঞ্জ ২২৮০-২২৮২, গফরগাঁও ২২৩০-২২৩৪, গৌরীপুর ২২৭০-২২৭১, ত্রিশাল ২২২০-২২২৩, নান্দাইল ২২৯০-২২৯১, ফুলপুর ২২৫০-২২৫, ফুলবাড়ীয়া ২২১৬, ভালুকা ২২৪০, ময়মনসিংহ সদর ২২০০-২২০৫, মুক্তাগাছা ২২১০, হালুয়াঘাট ২২৬০-২২৬২।

টেলিযোগাযোগ

ডিজিটাল টেলিফোন এক্সচেঞ্জ ১২টি, টেলিফোন কোড- ঈশ্বরগঞ্জ ০৯০২৭, গফরগাঁও ০৯০২৫, গৌরীপুর ০৯০২৪, ত্রিশাল ০৯০৩২, ধোবাউড়া ০৯০৩৪, নান্দাইল ০৯০২৯, ফুলপুর ০৯০৩৩, ফুলবাড়ীয়া ০৯০২৩, ভালুকা ০৯০২২, ময়মনসিংহ সদর ০৯১, মুক্তাগাছা ০৯০২৮, হালুয়াঘাট ০৯০২৬।

ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান                                                                          
মসজিদ ১০,৪৯০টি, মাজার ২১৭টি, মন্দির ৪১৫টি, গীর্জা ৭৯টি। 

   ময়মনসিংহের আদিবাসী   

                                                                              পাট গুদাম মোড় সংলগ্ন মন্দির                                                                            

 

সরকারী/অন্যান্য প্রতিষ্ঠান

উপজেলা ভূমি অফিস ১২টি, পৌর/ইউনিয়ন ভূমি অফিস ১৪৪টি, ভেটেরিনারী ট্রেনিং ইন্সটিটিউট ১টি, প্রাইমারী শিক্ষক প্রশিক্ষন ইনষ্টিটিউট ১টি, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষক প্রশিক্ষন ইনষ্টিটিউট ১টি, টিচার্স ট্রেনিং কলেজ ২টি, ন্যাশনাল ইনষ্টিটিউট অব প্রাইমারী এডুকেশন ১টি, সিডিউল বাণিজ্যিক ব্যাংক ৮০টি, ডাকবাংলো/রেষ্ট হাউজ১৯টি, ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন ৫টি, খাদ্য গুদাম ১৮টি, হাট-বাজার ৫৭১টি, যাদুঘর ২টি, সিনেমা হল ৩২টি, পার্ক ৩টি, স্টেডিয়াম ৩টি, খেলার মাঠ ১১৮টি।

নির্বাচন সংক্রান্ত                                                                             

                                                                                                       

নির্বাচনী এলাকা ১৪৬-১৫৬, ভোটার সংখ্যা পুরুষ১৪৪২৬৯৮ জন, মহিলা ১৪৭৪০১৩ জন, মোট ২৯১৬৭১১ জন