মেনু নির্বাচন করুন

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজ

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

১৯৮৯ সালে ‘‘শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম স্মৃতি পরিষদ’’ প্রতিষ্ঠার পরপরই এই মহান ব্যক্তিত্বের স্মৃতিকে অম্লান করে রাখার উদ্দেশে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব উঠে আসে সংগঠনের সভা গুলোতে। তবে আনুষ্ঠানিক উদ্দ্যোগ গ্রহণে অনেক সময় পেরিয়ে যায়। ১৯৯৫ সালে ময়মনসিংহ শহরে উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণীতে ছাত্রদের অধ্যায়নের একমাত্র সরকারী প্রতিষ্ঠান আনন্দ মোহন কলেজ থেকে সরকারী নির্দেশে উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণী উঠিয়ে দেয়া হলে অভিভাবকগণ হয়ে পড়েন উদ্বিগ্ন। শহরের অন্যান্য বেসরকারী কলেজ যথাযথ গুণগত মান সম্পন্ন না থাকায় কিংবা কোন প্রতিষ্ঠানকে সরকার সরকারীকরণ না করায় বিষয়টি ময়মনসিংহবাসীর দাবীতে পরিণত হয়।

 

১৯৯৮ সালে ২৮ আগস্ট শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম স্মৃতি পরিষদের সভায় একটি মান সম্পন্ন এবং শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের নামে কলেজ প্রতিষ্ঠার বিষয়টি আলোচ্যসূচীতে অন্তর্ভূক্ত হয়।

 

১৯৯৯ সালের ৬ মে জেলা রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির কার্যালয়ে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম স্মৃতি পরিষদের সভা এডভোকেট এম. জুবেদ আলী সাহেবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন আনন্দ মোহন কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর শামসুল ইসলাম, পদার্থবিদ্যা বিভাগের প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর আবুল কালাম, নেত্রকোণা সরকারী কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর মজিবর রহমান, আনন্দ মোহন কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ মুজিবুর রহমান। সভায় প্রখ্যাত শিক্ষাবিদগণ শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের নামে কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্দ্যোগকে এবং কলেজটি প্রতিষ্ঠাকল্পে স্বেচ্ছাশ্রম প্রদানের অঙ্গীকার করলে কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্দ্যোগ গতি পায়। সভায় সর্ব সম্মতিক্রমে ২০ সদস্য বিশিষ্ট কলেজ প্রতিষ্ঠাতা কমিটি গঠন করা হয়।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
এ.কে.এম. আবদুর রফিক 0 ssnicmymensingh@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

মোট ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা            ঃ        ২১৫৫ জন

 

ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রণী ভিত্তিক)  ঃ        একাদশ শ্রেণী         ঃ        ১১১০

                                                            দ্বাদশ শ্রেণী           ঃ        ১০৪৫

                                                            সর্বমোট               ঃ        ২১৫৫

৯৯.২৯%

আহবায়ক        ঃ      এডভোকেট এম. জুবেদ আলী

সদস্য             ঃ      এডভোকেট আনিসুর রহমান খান

                   ঃ      প্রফেসর শামসুল ইসলাম

                   ঃ      প্রফেসর আবুল কালাম

                   ঃ      প্রফেসর মজিবর রহমান

                   ঃ      প্রফেসর মোঃ মুজিবুর রহমান

                   ঃ      অধ্যক্ষ মতিউর রহমান

                   ঃ      ড. আনোয়ারুল ইসলাম

                   ঃ      এডভোকেট ওয়াজেদুল ইসলাম

                   ঃ      এডভোকেট এ.কে.এম. মঞ্জুরুল হক

                   ঃ      এডভোকেট মাহমুদ আল নূর তারেক

                   ঃ      এডভোকেট মতিয়ার রহমান বাচ্চু

                   ঃ      এডভোকেট ভুবন মোহন দাস গুপ্ত

                   ঃ      এম.এ কাসেম

                   ঃ      ডাঃ মির্জা হামিদুল হক

                   ঃ      ইঞ্জিনিয়ার রফিক হাসনাত

                   ঃ      ডাঃ ক্যাপ্টেন (অবঃ) মুজিবুর রহমান ফকির

                   ঃ      মজিবুর রহমান খান মিল্কি

                   ঃ      নাজিম উদ্দিন আহমেদ

                   ঃ      মোঃ মফিজুননূর খোকা

 

 

উপরে উল্লিখিত কমিটি অনতিবিলম্বে শিক্ষক নিয়োগ, ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি, আবাসন ও আসবাবপত্র তৈরীসহ সকল কার্যক্রম গ্রহণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। সভায় সর্ব সম্মতিক্রমে আনন্দ মোহন কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর শামসুল ইসলাম সাহেবকে  পদে নিয়োগ দান করা হয়। ০১/০৭/১৯৯৯ তারিখ প্রফেসর শামসুল ইসলাম অত্র প্রতিষ্ঠানে প্রতিষ্ঠাতা অধহিসেবে যোগদান করেন।

 

কলেজ প্রতিষ্ঠার পর প্রফেসর শামসুল ইসলাম তাঁর সর্বাত্মক চেষ্টায় কলেজকে এগিয়ে নেন। তাঁর প্রশাসনিক দক্ষতায় কলেজটিকে অচিরেই একটি উন্নতমানের কলেজে পরিণত হবার যোগ্যতা তৈরি করে দেয়। ছাত্র-ছাত্রী সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি পেতে থাকে। কলেজটি শিক্ষকদের একাগ্রতা, বাড়ী বাড়ী পরিদর্শন ইত্যাদি নিয়ে ক্রমঅগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখে। ২০০৪ সালে মে মাসে প্রফেসর শামসুল ইসলাম বয়সজনিত কারণে অবসর গ্রহণ করেন। কলেজের সিনিয়র শিÿক মোঃ মফিজুন নূর ভারপ্রাপ্ত অধ্যÿ হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।

 

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজে ২০০৪ এর ২৭ জুলাই অধ্যক্ষ হিসাবে যোগদান করেন ড. মারুফী খান এবং তাঁর সময়ে কলেজের শিÿার মান উন্নয়ন ও ফলাফলে প্রভুত উন্নয়ন সাধিত হয়। ২২/১২/২০১০ তারিখ তিনি অন্য একটি প্রতিষ্ঠানে চলেগেলে অত্র প্রতিষ্ঠানের শিÿক আসিফ মিনহাজ সেতু ভারপ্রাপ্ত অধ্যÿ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

 

বিগত ০৫/০৫/২০১১ তারিখ বিশিষ্ট শিÿাবিদ ও কৃষিবিদ এ.কে.এম. আবদুর রফিক অত্র প্রতিষ্ঠানে অধ্যÿ হিসেবে যোগদান করেন এবং অদ্যাবধি কর্মরত আছেন। তাঁর কর্তব্য নিষ্ঠা ও কঠোর পরিশ্রমে কলেজটি আজ দেশের অন্যতম সেরা প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে।

ছাত্রছাত্রী ও ফলাফল সংক্রান্ত তথ্য

সাল

ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা

সর্বমোট

H.S.Cতে

পরীক্ষাথীর সংখ্যা

পাশের সংখ্যা

পাশের হার

GPA প্রাপ্ত সংখ্যা

একাদশ

দ্বাদশ

২০০১

৩৭৪

১২১

৪৯৫

০৯৬

০৬১

৬৩.৫৬%

 

২০০২

    ৪৯৩

৪২৫

৯১৮

৩৭০

২৪৭

৬৬.৭৫%

 

২০০৩

৪১৯

৬০৬

১০২৫

৫৭০

৪৪৯

৭৮.৭৭%

 

২০০৪

৫২০

৫২১

১০৪১

৪৯৭

৪১৭

৮৩.৯০%

০০২

২০০৫

৫১৮

৬০৬

১১২৪

৫৫২

৪৯৭

৯০.৭৮%

০২১

২০০৬

৬৭৩

৫৪৫

১২১৮

৪৯৪

৪৮৮

৯৮.৭৮%

০২৬

২০০৭

৭৯৭

৬৭৮

১৪৭৫

৬৪৬

৬৩৬

৯৭.৯৮%

০৬১

২০০৮

৬৮৪

৭৪৭

১৪৩১

৭২৩

৭১৯

৯৯.৪৪%

২৩৭

২০০৯

৯৯০

৭১১

১৯০১

৬৮৬

৬৭৫

৯৮.৪০%

১৮২

২০১০

৭৯২

৯৫২

১৭৪৪

৯১৬

৯০৪

৯৮.৭৮%

২৮২

২০১১

১০৪৫

৭৪১

১৭৮৬

৭০৬

৭০১

৯৯.২৯%

৩৩৬

২০১২

১১১০

১০১৮

২১১৮

৯৯০

-

-

-

সরকারি, বেসরকারি এবং কলেজ আভ্যমত্মরীন শিক্ষাবৃত্তি

মেধাবী ও আর্থিক অস্বচ্ছল ছাত্রছাত্রীদেরকে প্রদান করা হয়।

অর্জনঃ                               ২০১০ ঢাকা বোর্ডে ১৪-তম

                                        ২০১১ ঢাকা বোর্ডে ১৫-তম

প্রতিষ্ঠানটিকে দেশের সেরা প্রতিষ্ঠানে উন্নয়ন ও উচ্চ শিক্ষা চালু করা।

শহীদ সৈয়দ নজরম্নল ইসলাম কলেজ

৭ নং শ্যামাচরণ রায় রোড, ময়মনসিংহ।

ইমেইল- ssnicmymensingh@gmail.com



Share with :

Facebook Twitter